Select your Top Menu from wp menus
বৃহস্পতিবার, ১৯শে অক্টোবর ২০১৭ ইং ।। দুপুর ১:১৮

সেতু ভেঙে ১২ পথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার মাদারসী এলাকায় গতকাল শুক্রবার রাতে পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক একসঙ্গে পার হওয়ার সময় একটি বেইলি সেতু ভেঙে পড়েছে। এ কারণে মঠবাড়িয়া ও পাথরঘাটা উপজেলার সঙ্গে ১২টি পথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দিবাগত রাত দুইটার দিকে পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক একসঙ্গে সেতুটি পার হচ্ছিল। এ সময় অতিরিক্ত ওজনের কারণে সেতুটি ভেঙে ট্রাকসহ খালে পড়ে যায়। দুর্ঘটনার পর থেকে যান দুটির চালক পলাতক। সেতুটি ভেঙে পড়ায় মঠবাড়িয়া ও বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার সঙ্গে ঢাকা, বরিশাল, খুলনা, পিরোজপুরসহ ১২টি পথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগের (সওজ) পিরোজপুর কার্যালয়ের উপসহকারী প্রকৌশলী ফখরুল ইসলাম বলেন, সর্বোচ্চ ২০ টন ধারণক্ষমতাসম্পন্ন বেইলি সেতুটি দিয়ে মোট ৫০ টনের পাথরবোঝাই দুটি ট্রাক (প্রতি ট্রাকে ২৫ টন) একসঙ্গে পার হওয়ায় সেতুটি ভেঙে যায়।

ভান্ডারিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘ভেঙে পড়া সেতু দিয়ে মানুষ ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছিল। আমরা মানুষের চলাচল বন্ধ করে খেয়া নৌকায় পারাপারের ব্যবস্থা করেছি। ঘটনার পর থেকে ট্রাকের চালক পলাতক রয়েছেন।

সওজের পিরোজপুর কার্যালয়ের নির্বাহী প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, বরিশাল থেকে ক্রেন এনে উদ্ধারকাজ শুরু করা হচ্ছে। সেতুটি দ্রুত পুনঃস্থাপন করা হবে।

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার মাদারসী এলাকার এই বেইলি সেতুটির ধারণক্ষমতা ২০ টন। গতকাল শুক্রবার রাতে পাথরবোঝাই মোট ৫০ টন ওজনের দুটি ট্রাক পার হওয়ার সময় সেতুটি ভেঙে যায়। এতে করে ১২টি পথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। সুত্র: প্রথম আলো।

About The Author

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *