শিরোনাম

১৭ বছরে জিম্বাবুয়ের প্রথম

| ০৭ নভেম্বর ২০১৮ | ৪:৪৮ অপরাহ্ণ

১৭ বছরে জিম্বাবুয়ের প্রথম

নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে ১৭ বছর পর অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেলো জিম্বাবুয়ে। গতকাল সিলেটে সিরিজের প্রথম টেস্টে বাংলাদেশকে ১৫১ রানে হারায় সফরকারীরা। ২০০১ সালে জিম্বাবুয়ের আগের অ্যাওয়ে টেস্ট জয়ের প্রতিপক্ষও ছিল বাংলাদেশ। চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে সে ম্যাচে ৮ উইকেটের জয় পায় জিম্বাবুয়ে। সব মিলিয়ে বিদেশের মাটিতে তিনবার টেস্ট জেতে জিম্বাবুইয়ানরা। আর বাংলাদেশকে হারিয়ে পাঁচবছর পর টেস্টে জয়ের দেখা পায় তারা। এটি জিম্বাবুয়ে ১২তম টেস্ট ম্যাচ জয়। সংখ্যায় সংখ্যায় এই ম্যাচের কিছু দিক তুলে ধরা হলো:
৬৮৫-দুই ইনিংসে বাংলাদেশের ২০ উইকেট নিতে ৬৮৫ বল করে জিম্বাবুয়ে।যেটি এক টেস্টে প্রতিপক্ষকে দুইবার অলআউট করতে জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রেকর্ড। এর চেয়ে কম বলে প্রতিপক্ষকে অলআউট করার কীর্তিও বাংলাদেশের বিপক্ষে। ২০১৩ সালে হারারে টেস্টে ৬২১ বলে বাংলাদেশের দুই ইনিংস (১৩৪ ও ১৪৭ রান) গুটিয়ে দেয় জিম্বাবুয়ের বোলাররা।
০- সিলেট টেস্টে জিম্বাবুয়ের কোনো খেলোয়াড় ২০০১ সালে সবশেষ অ্যাওয়ে টেস্ট জয়ের দলে ছিলেন না। ওই ম্যাচ জয়ের আগে ২০০১ সালের জুলাইয়ে টেস্ট অভিষিক্ত হন হ্যামিল্টন মাসাকাদজা।
২-টেস্টে জিম্বাবুয়ের হয়ে অভিষেক ম্যাচে দ্বিতীয় সেরা বোলিং ফিগার লেগস্পিনার ব্রেন্ডন মাভুতার (৪/২১)। ২০০১ সালে বুলাওয়েতে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৭৩ রানের বিনিময়ে পাঁচ উইকেট নেন পেসার অ্যান্ডি ব্লিগনট। যা জিম্বাবুয়ের হয়ে টেস্ট অভিষেকে সেরা বোলিং ফিগারের রেকর্ড।
৮-টেস্টে টানা আট ইনিংসে দুইশ’র নিচে অলআউট হয়ে ভুলে থাকার মতো অভিজ্ঞতা নেয় বাংলাদেশ। শুরুটা হয় ঢাকায় এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট দিয়ে।
১৯.৬৭- এ বছর টেস্টে উইকেট প্রতি বাংলাদেশের রানের গড় ১৯.৬৭। যা একটির বেশি টেস্ট খেলা যেকোনো দলের চেয়ে খারাপ। এ বছর বাংলাদেশ পাঁচটি টেস্ট খেলে (১ ড্র, ৪ হার)। নিজেদের সবশেষ চার টেস্টেই হার দেখে বাংলাদেশ। আর এই চার ম্যাচে উইকেটপ্রতি রানের গড় মাত্র ১৩.১১।

টেস্টে বাংলাদেশের শেষ ৮ ইনিংস
স্কোর    ওভার    ইনিংস    প্রতিপক্ষ    ভেন্যু            সময়
১১০    ৪৫.৪    ২    শ্রীলঙ্কা    ঢাকা    ৮ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮
১২৩    ২৯.৩    ৪    শ্রীলঙ্কা    ঢাকা    ৮ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮
৪৩    ১৮.৪    ১    ও.ইন্ডিজ    নর্থ সাউন্ড    ৪’ঠা জুলাই ২০১৮
১৪৪    ৪০.২    ৩    ও.ইন্ডিজ    নর্থ সাউন্ড    ৪’ঠা জুলাই ২০১৮
১৪৯    ৪৬.১    ২    ও.ইন্ডিজ    কিংস্টন    ১২ই জুলাই ২০১৮
১৬৮    ৪২    ৪    ও.ইন্ডিজ    কিংস্টন    ১২ই জুলাই ২০১৮
১৪৩    ৫১    ২    জিম্বাবুয়ে    সিলেট    ৩’রা নভেম্বর ২০১৮
১৬৯    ৬৩.১    ৪    জিম্বাবুয়ে    সিলেট    ৩’রা নভেম্বর ২০১৮

স্কোর কার্ড (চতুর্থ দিন)
বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে প্রথম টেস্ট
সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম
৩-৭ই নভেম্বর ২০১৮
টস: জিম্বাবুয়ে, ব্যাটিং
জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস: ২৮২
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ১৪৩
জিম্বাবুয়ে দ্বিতীয় ইনিংস: ১৮১
বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস     রান     বল     ৪     ৬
লিটন এলবি রাজা     ২৩     ৭৫     ৩     ০
ইমরুল ব রাজা     ৪৩     ১০৩     ৬     ০
মুমিনুল ব জার্ভিস     ৯     ১৩     ২     ০
মাহমুদুল্লাহ ক (সাব আরভিন) ব রাজা     ১৬     ৪৫     ০     ০
শান্ত ক রাজা ব মাভুতা     ১৩     ৩২     ১     ০
মুশফিক ক ওয়েলিংটন ব মাভুতা     ১৩     ৪৪     ০     ০
আরিফুল ক চাকাভা ব ওয়েলিংটন     ৩৮     ৩৭     ৪     ২
মিরাজ ক চাকাভা ব মাভুতা     ৭     ১৫     ০     ০
তাইজুল ক টেইলর ব ওয়েলিংটন     ০     ৩     ০     ০
অপু এলবি মাভুতা     ০     ১     ০     ০
রাহী অপরাজিত     ০     ১১     ০     ০
অতিরিক্ত (বা ৫, লেবা ২)     ৭
মোট (৬৩.১ ওভার; অলআউট)     ১৬৯
উইকেট পতন: ১-৫৬ (লিটন, ২২.৬), ২-৬৭ (মুমিনুল, ২৭.৩), ৩-৮৩ (ইমরুল, ৩৬.৫), ৪-১০২ (মাহমুদুল্লাহ, ৪২.৩), ৫-১১১ (শান্ত, ৪৬.৫), ৬-১৩২ (মুশফিক, ৫৪.৩), ৭-১৫০ (মিরাজ, ৫৮.৬), ৮-১৫১ (তাইজুল, ৫৯.৫), ৯-১৫৫ (অপু, ৬০.১), ১০-১৬৯ (আরিফুল, ৬৩.১)।
বোলিং: জার্ভিস ১৪-৫-২৯-১, চাতারা ৯-২-২৫-০, রাজা ১৭-১-৪১-৩, উইলিয়ামস ৮-২-১৩-০, মাভুতা ১০-২-২১-৪, ওয়েলিংটন ৫.১-০-৩৩-২।
ফল: জিম্বাবুয়ে ১৫১ রানে জয়ী
ম্যাচসেরা: শন উইলিয়ামস (জিম্বাবুয়ে)

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিয়ে করলেন নাবিলা

২৭ এপ্রিল ২০১৮

ফেইজবুকে আমরা

  • পুরনো সংখ্যা

    SatSunMonTueWedThuFri
         12
    10111213141516
    17181920212223
    24252627282930
           
          1
    9101112131415
    30      
         12
           
          1
    2345678
    30      
       1234
    262728293031 
           
         12
           
      12345
    2728293031  
           
    891011121314
    2930     
           
        123
           
        123
    25262728   
           
    28293031   
           
          1
    2345678
    9101112131415
    3031     
          1
    30      
      12345
    272829    
           
        123
           
    28