শিরোনাম

আপনাকে যে কারনে প্রত্যহ বাদাম খেতে হবে!

| ১৯ অক্টোবর ২০১৪ | ১০:৪২ অপরাহ্ণ

nut_healthy_swadeshnews24মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান , ডিভিএম , হাবিপ্রবি,দিনাজপুর।

বাদাম, অল্প টাকাই খেতে খেতে সময় পার করার সবচেয়ে ভালো উপাই । বন্ধুত্ত ঠিক রাখতেও সহায়ক এটি । সবাই বলে কিছু খাওয়াতে না পারলে বাদাম তো পারবো। সম্পর্ক রক্ষায় বাদাম যতটা না উপকারী তার চেয়ে অনেক উপকারী আপনার শরীরের জন্যে । নিজের জীবন উৎসর্গ করে রক্ষা করে আপনার জীবন । আসুন জেনে নিই কি করে এই বাদাম।

বাদামে আছে প্রচুর পরিমানে উপকারী ফ্যাট, উদ্ভিজ্জ প্রোটিন , ভিটামিন মিনারেল,ফাইওবার এবং এন্টি-অক্সিডেন্টের মতো প্রয়োজনীর খাদ্য উপাদান। পুষ্টিবিজ্ঞানীরা তাই বেশ জোরের সাথে বলছেন , নিয়মিত বাদাম খান।

বাদামের ফ্যাট হৃৎবান্ধব

একটি বাদামের শতকরা ৮০ ভাগই ফ্যাট যা পুরোটাই শরীরের জন্যে উপকারী। এওক্টি শুকনো ভাজা চীনাবাদামে সম্পৃক্ত চর্বির পরিমাণ মাত্র ২ গ্রাম ,আর উপকারী অসম্পৃক্ত চর্বির পরিমাণ ১১.৪ গ্রাম । এইচডিএল হার্ট জন্যে খুব উপকারী তা ক্ষতিকর এলডিএল এর মাত্রা কমিয়ে দেয় । তা পর্যাপ্ত পরিমানে আছে বাদামে । বাদামে এল- আরজিনিন যা ধমনীর দেয়ালকে সবল ও নমনীয় হতে সাহায্য করে । তাছাড়া রক্ত জমাট বাধতে বাঁধা দিয়ে আপনার হার্ট অ্যাটাকের ঝুকি কমায় । ১৯৯৬ সালে আমেরিকার আইওয়া-র একটি রিপোর্টে দেখা যায় যারা সপ্তাহে অন্তত চার দিন বাদাম খেয়েছেন তাদের হৃদরোগ জনিত মৃত্য ঝুকি কমেছে ৪০ ভাগ।

উচ্চ রক্তচাপ , স্ট্রোক , ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করে

চীনাবাদামে আছে ‘রেসভেরাট্রোল’ যা একটি এন্টি-অক্সিডেন্ট। এর কাজ দেহের রক্তনালীর অপর এনজিওটেনসিনের কার্যকারিতা কমিয়ে দেয়া । এতে রক্তের স্বাভাবিক চাপ বজায় থাকে , তেমনি হঠাৎ রক্তচাপ বেড়ে গিয়ে স্ট্রোকের ঝুকিও কমায় । আরো আছে কো-এনজাইম কিউ ১০(Co-Q10)। এটিও শক্তিশালী এন্টি-অক্সিডেন্ট। হৃৎপিন্ড , মস্তিস্ক, ও পেশীর স্বাভাবিক কাজ পরিচালনায় দক্ষ এটি । তারুণ্যকে দীর্ঘায়িত করার পাশাপাশি হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ , স্তন ক্যান্সার , মাড়ির রোগ ,গুরুতর পেশী সমস্য, বন্ধ্যত্ব , পাকস্থলীর আলসার , ইত্যাদি রোগ প্রতিরোগ ও নিরাময়ে ব্যাপক প্রভাব আছে ।

বাদামে আছে আশ, ফাইটোস্টেরল

যা আপনার পরিপাক তন্ত্রের সুস্থতা, সবাভাবিক রেচন প্রক্রিয়া এবং কোলন ক্যান্সার সহ বিভিন্ন রকম ক্যান্সার ও ডায়াবেটিস প্রতিরোধে এটি গুরুত্তপূর্ন ভুমিকা পালন করে ।

ভিটামিন –মিনারেল

আছে ভিটামিন বি কমপ্লেক্স ও ভিতামিন ই যা সার্বিক সুস্থতার পাশাপাশি বিশেষত ত্বক , চুল ও পেশীর ভালো রাখে । ফলিক এসিড আছে বলে গর্ভবতী মা এবং গর্ভস্ত শিশুর জন্যেও বাদাম উপকারী । মিনারেল পর্যাপ্ত পরিমানে উপস্থিত যা আপনার শরীরের ঘাটতি পূরন করে বৃদ্ধিতে সাহায্য করে ।

তাই প্রত্যেহ বাদাম খান । বাদামের বিভিন্ন রেসিপি তৈরি করে ফাস্ট ফুড এর বিকল্প করে খান । যা আপনাকে উভয় দিক থেকে ভালো রাখবে । বিকালের তেলেভাজা জিনিষের প্লেট কে সরিয়ে ফেলে এক মুঠ বাদাম মুখে তুলে নিন । তারুণ্য ও সুস্থতায় ভরিয়ে তুলুন নিজেকে ও পরিবারকে । খাবার পরিমাণ দিনে অন্তত ৫০ গ্রাম ।

তহ্যসুত্রঃ জার্নাল অব আমেরিকান মডি কল এ্যাসোসিয়েশন (১২ সেপ্টেম্বর ২০১২)

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

চিরতার ১২ গুণ-ডা. আলমগীর মতি

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ফেইজবুকে আমরা

  • পুরনো সংখ্যা

    SatSunMonTueWedThuFri
    15161718192021
    22232425262728
    293031    
           
          1
    9101112131415
    30      
         12
           
          1
    2345678
    30      
       1234
    262728293031 
           
         12
           
      12345
    2728293031  
           
    891011121314
    2930     
           
        123
           
        123
    25262728   
           
    28293031   
           
          1
    2345678
    9101112131415
    3031     
          1
    30      
      12345
    272829    
           
        123
           
    28