ইংল্যান্ডের নেতৃত্বে ‘অনভিজ্ঞ’ স্টোকস

চলতি মাসেই দ্বিতীয় সন্তানের বাবা হতে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের নিয়মিত টেস্ট অধিনায়ক জো রুট। তাই ঘরের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলছেন না তিনি। রুটের অনুপস্থিতিতে ইংল্যান্ডের নেতৃত্ব দেবেন টেস্টের সহ-অধিনায়ক বেন স্টোকস। অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফের পর প্রথম অলরাউন্ডার হিসেবে টেস্টে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক নির্বাচিত হলেন তিনি। ২০০৫ সালের মার্চ থেকে ২০০৭ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক ছিলেন ফ্লিনটফ। উইন্ডিজের বিপক্ষে আগামী ৮ই জুলাই সাউদাম্পটনে শুরু হতে যাওয়া টেস্টে সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান জস বাটলার। সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের ৮১তম অধিনায়ক বেন স্টোকস। ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণে ইংলিশদের মধ্যে সবচেয়ে ‘অনভিজ্ঞ’ তিনি।

২০১৯ সালের জুলাইয়ে টেস্টে সহ-অধিনায়ক নির্বাচিত হন ২৯ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার। ক্যারিয়ারে কোনো প্রথম শ্রেণি, লিস্ট ‘এ’ কিংবা টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নেতৃত্ব দেননি বেন স্টোকস। গত ৫০ বছরে কোনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচে নেতৃত্ব না দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের অধিনায়কত্ব করার সম্মান পেয়েছেন কেবল কেভিন পিটারসেন, ২০০৮ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। তাদের বিপক্ষে একটি এবং সেই বছরের ডিসেম্বরে ভারতে দুই ম্যাচে ইংলিশদের নেতৃত্ব দেন পিটারসেন।
এই তিন টেস্টের দুটিতেই হেরেছিল ইংল্যান্ড এবং অপরটি ড্র।
২০০৬ সালে ডারহাম একাডেমিতে থাকাকালীন শেষবার অধিনায়কত্ব করেছিলেন স্টোকস। এরপর লম্বা সময় পেরিয়ে গেলেও কেন আর নেতৃত্ব দেননি, কয়েকদিন আগে এক সাক্ষাৎকারে সে ব্যাখ্যায় স্টোকস বলেন, “আমি কখনোই অধিনায়ক হওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করিনি। সত্যি বলতে, আমি তাদের মধ্যে একজন নই যাকে লোকেরা ইংল্যান্ডের পরবর্তী অধিনায়ক হিসেবে বিবেচনা করে থাকে। যদি কেবল একবারও ঘটে (নেতৃত্ব দেয়া), তবুও আপনি বলতে পারবেন, ‘হ্যাঁ, আমি ইংল্যান্ডকে নেতৃত্ব দিয়েছি’। ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হওয়া অনেক সম্মানের।”
২০১৯ সালে আইসিসির বর্ষসেরার পুরস্কার পাওয়া বেন স্টোকস ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে একজন আগ্রাসী চরিত্রের ক্রিকেটার হিসেবে পরিচিত। নেতা হিসেবে তিনি কেমন করবেন তা নিয়ে সংশয় রয়েছে অনেকের মনে। সেটা উড়িয়ে দিয়ে ইংল্যান্ড কোচ ক্রিস সিলভারউড বলেন, ‘সে প্রথমবার নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছে। সবার এ ব্যাপারে বেশ কৌতুহল রয়েছে। স্টোকস আগ্রাসী ঘরানার ক্রিকেটার। তবে তার ক্রিকেট জ্ঞান অসাধারণ। আমার মনে হয় সে অধিনায়ক হিসেবে দারুণ করবে। সে নিয়মিত পারফর্মার। রুটের অনুপস্থিতিতে সে দলকে আগলে রাখবে। এই গুণটা তার মধ্যে রয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.