শিরোপা স্বপ্ন ফিকে বার্সেলোনার তবুও নির্ভার কোচ সেতিয়েন

গত শনিবার সেল্টা ভিগোর মাঠে পয়েন্ট হারিয়ে কোচকে একহাত নিয়েছিলেন লুইস সুয়ারেজ। উরুগুইয়ান এই স্ট্রাইকার বলেছিলেন, ‘প্রতিপক্ষের মাঠে আমরা এর আগে এত বেশি পয়েন্ট হারাতাম না। কেন এটা হচ্ছে কোচরা ভালো বলতে পারবেন। কারণ তারাই এসব নিয়ে পর্যালোচনা করেন।’ তখনই বোঝা গিয়েছিল কোচ কিকে সেতিয়েনের ওপর খুশি নয় বার্সেলোনার ফুটবলাররা। মঙ্গলবার রাতে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করে আবারো পয়েন্ট হারিয়েছে কাতালানরা। শেষ ৪ ম্যাচের তিনটিতেই ড্র করে স্প্যানিশ লা লিগার শিরোপা স্বপ্ন ফিকে হয়ে গেছে বার্সেলোনার। এরই মধ্যে স্পেনের শীর্ষ গণমাধ্যমে খবর, মৌসুম শেষে চাকরি হারাতে চলেছেন কিকে সেতিয়েন। তবে বার্সা কোচ এসব নিয়ে ভাবনাহীন।অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি না এ ধরনের কোনো সম্ভাবনা আছে।’
অ্যাটলেটিকোর বিপক্ষে জয় না পাওয়ায় শিরোপা স্বপ্নে বড় ধাক্কা লাগলো বার্সেলোনার। ৩২ ম্যাচে ৭১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। এক ম্যাচ বেশি খেলে ২১ জয় ও সাত ড্রয়ে মেসিদের সংগ্রহ ৭০ পয়েন্ট। ডিয়েগো সিমিওনের দলকে হারাতে না পারায় হতাশ সেতিয়েন, ‘এটা হতাশার। পয়েন্ট হারানো মানে শিরোপা জয়ের সম্ভাবনা কমে যাচ্ছে। আমাদের চেষ্টা করে যাওয়া উচিত। অ্যাটলেটিকোর মতো একটা গোছানো দলের বিপক্ষে খেলা সব সময় কঠিন। আমরা ম্যাচটা জিততে পারিনি। তবে আমি ছেলেদের পারফরমেন্সে খুশি।’
রোমাঞ্চ আর নাটকীয়তায় ভরা ম্যাচে প্রথম গোলের দেখা পায় বার্সেলোনা। একাদশ মিনিটে মেসির নিচু ফ্রিকিক কর্নারের বিনিময়ে ঠেকান ডিয়েগো কস্তা। মেসির নেয়া কর্নার ঠেকাতে গিয়ে স্প্যানিশ স্ট্রাইকার কস্তার ডান ঊরুর ভিতরের দিকে লেগে দুই পায়ের মাঝ দিয়ে গিয়ে জালে জড়ায়। ১৫তম মিনিটে ডি-বক্সে কারাসকোকে বার্সেলোনার আর্তুরো ভিদাল ফাউল করলে পেনাল্টি পায় অ্যাটলেটিকো। এখানেও ভিলেন হতে বসেছিলেন কস্তা। তার নেয়া স্পটকিক ঠেকিয়ে দেন টের স্ট্যাগান। কিন্তু কস্তা শট নেয়ার আগেই গোলপোস্ট ছেড়ে বেরিয়ে আসায় স্ট্যাগানকে হলুদ কার্ড দেখিয়ে আবারো পেনাল্টি শট নেয়ার নির্দেশ দেন রেফারি। এবার কস্তা নয়, স্পটকিক নেন সাউল নিগেস। সমতায় ফেরে অ্যাটলেটিকো।
দ্বিতীয়ার্ধে আবারো উত্তেজনা। ৪৮তম মিনিটে ডিবক্সে ফাউলের শিকার নেলসন সেমেদো। সফল স্পটকিকে ৭০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন লিওনেল মেসি। ২-১ গোলে পিছিয়ে থাকা অ্যাটলেটিকো সময়তায় ফিরতে খু্‌ব বেশি সময় নেয়নি। বার্সাকে পেনাল্টি এনে দেয়া সেমেদো এবার ডিবক্সে ফাউল করে বসেন কারাসকোকে। পেনল্টি থেকে গোল আদায় করেন সাউল নিগেস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.