1. ccadminrafi@gmail.com : Writer Admin : Writer Admin
  2. 123junayedahmed@gmail.com : জুনায়েদ আহমেদ, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর : জুনায়েদ আহমেদ, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর
  3. swadesh.tv24@gmail.com : Newsdesk ,স্বদেশ নিউজ২৪.কম : Newsdesk ,স্বদেশ নিউজ২৪.কম
  4. swadeshnews24@gmail.com : নিউজ ডেস্ক, স্বদেশ নিউজ২৪.কম, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর: : নিউজ ডেস্ক, স্বদেশ নিউজ২৪.কম, সম্পাদনায়-আরজে সাইমুর:
  5. hamim_ovi@gmail.com : Rj Rafi, সম্পাদনায়- সাইমুর রহমান : Rj Rafi, সম্পাদনায়- সাইমুর রহমান
  6. rifatkabir582@gmail.com : রিফাত কবির, সম্পাদনায়-সাইমুর রহমান : রিফাত কবির, সম্পাদনায়-সাইমুর রহমান
  7. skhshadi@gmail.com : শেখ সাদি, সম্পাদনায়-সাইমুর রহমান: : শেখ সাদি, সম্পাদনায়-সাইমুর রহমান:
  8. srahmanbd@gmail.com : এডমিন, সম্পাদনায়- সাইমুর রহমান : এডমিন, সম্পাদনায়- সাইমুর রহমান
বঙ্গবন্ধু সেতু রক্ষায় পৃথক রেল সেতু - Swadeshnews24.com
শিরোনাম
রোজা আফরোজার ডিজাইনে লোরাটো’র জাঁক-জমক ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত ওয়াকারের বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ ঈদে মিলন মাহমুদের ‘মনের মানুষ’ মূল্যস্ফীতি সামাল দিতে সংকোচনমুখী মুদ্রানীতি সৌদি পৌঁছেছেন প্রায় ৫৭ হাজার হজযাত্রী, ১২ জনের মৃত্যু বাংলাদেশকে আরও ৩৮ লাখ ডোজ টিকা দিল যুক্তরাষ্ট্র পদ্মা সেতু পার হয়ে টুঙ্গিপাড়া গেলেন প্রধানমন্ত্রী শ্রীলঙ্কায় আবারও এক সপ্তাহের জন্য স্কুল বন্ধ ঈদে আসছে ইমরানের ‘ঘুম ঘুম চোখে’ হ্যাকারদের কবলে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর ইউটিউব ও টুইটার অ্যাকাউন্ট টোল দিয়ে পদ্মা সেতুতে উঠলেন প্রধানমন্ত্রী, গাড়ি থামিয়ে উপভোগ করলেন সৌন্দর্য বাসের টিকিট শেষ, রেলে দীর্ঘ সারি যাদের ওপর কোরবানি ওয়াজিব ক্ষমতা, সম্মান ও পরাক্রম কেবল আল্লাহর জন্য ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছাড়তে চাই, সরাসরি জানালেন রোনালদো

বঙ্গবন্ধু সেতু রক্ষায় পৃথক রেল সেতু

  • Update Time : রবিবার, ১১ মে, ২০১৪
  • ২২৬ Time View
pic-31_82807১৫ বছর বয়সের বঙ্গবন্ধু সেতু ঝুঁকিমুক্ত রাখা এবং ট্রেনযাত্রীদের নিরাপদ চলাচল ও সেবা বাড়াতে এর সমান্তরালে পৃথক রেল সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ডুয়েলগেজ ডাবল ট্র্যাকবিশিষ্ট এই সেতু নির্মাণে খরচ হবে ছয় হাজার ২৬৭ কোটি টাকা। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে ইতিমধ্যে ক্যানরেল নামের কানাডীয় একটি প্রতিষ্ঠান সেতুর সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের প্রাথমিক প্রতিবেদন রেল কর্তৃপক্ষের কাছে জমা দিয়েছে।
রেলের মহাপরিচালক তাফাজ্জল হোসেন বলেন, ‘যমুনা নদীর ওপর আলাদা রেল সেতু যে কতটা জরুরি তা গত ২৭ এপ্রিল রাতের দুর্ঘটনায় আমরা টের পেয়েছি। ট্রেন কাত হয়ে পড়েছিল সেতুতে। অল্পের জন্য ভয়াবহ দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পাওয়া গেছে।’ তিনি জানান, ইতিমধ্যে বিভিন্ন  দেশ ও প্রতিষ্ঠান যমুনায় রেল সেতু নির্মাণে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।
প্রসঙ্গত, ২৭ এপ্রিল রাতে বঙ্গবন্ধু সেতু পারাপারকালে ঢাকা থেকে দিনাজপুরগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনটি কাত হয়ে সেতুর দিকে হেলে পড়ে। লাইনচ্যুত হয় কয়েকটি বগি। খবর পেয়ে দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে যান রেলমন্ত্রী মো. মুজিবুল হকসহ রেলওয়ের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা।
বুয়েটের সাবেক অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সেতুর নকশায় উত্তর দিকে আলাদা রেল সেতু নির্মাণের প্রভিশন রাখা হয়েছিল। প্রতিবছর উন্নয়ন সহযোগীদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকে আমি আলাদা রেল সেতু নির্মাণের বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দেওয়ার জন্য বলে আসছি। নতুন রেল সেতু নির্মাণ হলে বঙ্গবন্ধু সেতু রক্ষা পাবে। বঙ্গবন্ধু সেতুতে ফাটল ধরার বড় কারণ ছিল তাপমাত্রা ও অতিরিক্ত ভারজনিত বিষয়। সেতুর ভেতরে এখনো চিকন ফাটল রয়ে গেছে, বড় বড় ফাটল মেরামত করা হয়েছে।’
বঙ্গবন্ধু সেতুর বর্তমান বয়স ১৫ বছর। ১৯৯৮ সালের ২৩ জুন চালুর সাত বছরের মাথায় এতে ফাটল ধরা পড়ে। বিশেষজ্ঞরা দ্রুততম সময়ে সেতুর ফাটল মেরামতের সুপারিশ করেন। এর পরও টানা সাত বছর মেরামতের তেমন উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। পরবর্তীকালে চায়না কমিউনিকেশন কন্সট্রাকশন কম্পানি ২০১১ সালে কাজ শুরু করে ২০১৩ সালে তা শেষ করে। এই সময়ে বড় বড় ফাটল সারানো হয়েছে। তবে সেতুর বেশির ভাগ স্থানে ফাটল রয়েই গেছে। আর সেতুতে ফাটল বড় হওয়ার মূল কারণ ট্রেন চলাচলের সময় সৃষ্ট কম্পন। সেতু বিভাগ সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
সেতু এলাকায় কর্মরত বাংলাদেশ সেতু বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ কালের কণ্ঠকে বলেন, বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে সেতুর বিভিন্ন অংশে ফাটল রয়েছে। বড় ফাটলগুলো মেরামত শেষে অন্যান্য অংশ মেরামতের বিষয়ে সেতু বিভাগ পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে।
রেলপথ মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, রেলের সাতটি প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে এডিবি ২০০ কোটি টাকার অর্থায়ন করেছে। এর মধ্যে সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের কাজটিও রয়েছে। ক্যানরেল গত বছরের নভেম্বরে সম্ভাব্যতা যাছাইয়ের প্রাথমিক প্রতিবেদন তৈরি করে রেল কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠায়। এখন রেল কর্তৃপক্ষের মতামত নিয়ে প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হবে। সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের চূড়ান্ত কাজ আগামী জুনের মধ্যে শেষ হবে।
সম্ভাব্যতা যাছাইয়ের প্রাথমিক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, নতুন রেল সেতু হবে ৪.৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে। বিদ্যমান বঙ্গবন্ধু সেতুর তিন শ মিটার উজানে এটি নির্মাণ করা হবে। যমুনা ইকো পার্কের পাশ দিয়ে এটি বিদ্যমান বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম অংশের সঙ্গে যুক্ত হবে। রেল সেতুতে ১০টি কালভার্ট থাকবে। নির্মিতব্য সেতু দিয়ে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের গতিবেগ হবে ১০০ কিলোমিটার। মেইল ট্রেন চলবে ৮০ কিলোমিটার বেগে। কনটেইনারও চলবে ৮০ কিলোমিটার গতিতে। মালবাহী ট্রেনে ৩২.৫ টন মালামাল পরিবহন করা যাবে। ২০২৩ সালে যাত্রী পরিবহন বাবদ দিনে রেলের আয় হবে ৯৬ লাখ ৪৭ হাজার টাকা। বিভিন্ন প্রক্রিয়ার পর আগামী ৯ বছরের মধ্যে সেতুটি নির্মাণ সম্ভব হবে। এই সেতু নির্মাণে নদীশাসনে কোনো ব্যয় হবে না।
রেলের অপারেশন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সেতুতে ট্রেন চলাচলের অনুমোদিত গতিবেগ ২০ কিলোমিটার। ঝুঁকি কমাতে এর চেয়েও পাঁচ কিলোমিটার কম গতিতে ট্রেনগুলো চালানো হচ্ছে। এই রেল সেতু ২২ জোড়া ট্রেন চলাচলের ভার নিতে সক্ষম। এর চেয়ে চার জোড়া বেশি ট্রেন চালানো হচ্ছে। এর মধ্যে আন্তনগর ট্রেনই ২৪ জোড়া।
সূত্র জানায়, বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে আর নতুন কোনো ট্রেন চালানো সম্ভব হবে না। বর্তমানে কনটেইনারও চলাচল করছে না। রেলওয়ের অপারেশন বিভাগের যুগ্ম মহাপরিচালক সাহাদাত আলী সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, ভবিষ্যতে ঢাকা থেকে উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন পথে যাত্রী পরিবহনের জন্য ট্রেন বাড়াতে হবে। বঙ্গবন্ধু সেতু পারাপারের আগে থেকে বেশির ভাগ ট্রেনে যাত্রীদের মাইকে সতর্ক থাকার ঘোষণা দেওয়া হয়ে থাকে। নতুন সেতু হলে দেশের যেকোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা অন্য কোনো কারণে বঙ্গবন্ধু সেতু বন্ধ থাকলে প্রস্তাবিত সেতুটি জরুরি অবস্থা মোকাবিলায় ব্যবহার করা যাবে।কা।ক

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

More News Of This Category
© All rights reserved © 2020 SwadeshNews24
Site Customized By NewsTech.Com