‘সাপের কামড়েরও ওষুধ আছে, কিন্তু আফ্রিদির…’

‘হারের পর প্রায়ই আমাদের কাছে মাফ চাইতো ভারত’- সম্প্রতি এক ইউটিউব শোতে এমন মন্তব্য করেছেন সাবেক পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। ভারতজুড়ে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে তাতে। ভারতের সাবেক ক্রিকেটার আকাশ চোপড়া আফ্রিদির উদ্দেশ্যে বলেছেন, ‘সাপের কামড়ের চিকিৎসা আছে, কিন্তু ভুল ধারণার কোনো চিকিৎসা নেই।’

চোপড়া মনে করেন, পরিসংখ্যান বিচারে আফ্রিদির মুখে ওমন কথা শোভা পায় না। চোপড়া বলেন, ‘একটা সময় ছিল যখন ভারত প্রায়ই শারজাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলতো। তখন ম্যাচের ভারসাম্য পাকিস্তানের দিকে হেলে থাকতো। কিন্তু সেটা আফ্রিদির সময়ে নয়। পাকিস্তানের শক্তি ছিল ইমরান খান, ওয়াসিম আকরাম থেকে ওয়াকার ইউনুসরা। তাদের কারণে ওরা অনেক ভালো খেলতো।

তারা প্রায়ই হারাতো ভারতকে। কোনো সন্দেহ নেই তাতে। কিন্তু আফ্রিদি যখন খেলা শুরু করে তখন থেকে তার অবসর পর্যন্ত দৃশ্যপট পাল্টেছে।’
আফ্রিদির সময়ে ভারত-পাকিস্তান পরিসংখ্যান তুলে ধরেছেন চোপড়া, ‘আপনি যদি পরিসংখ্যান দেখেন, আফ্রিদির সময়ে আমরা ১৫টি টেস্ট খেলেছি। উভয় দল জিতেছে সমান ৫টি করে। ওয়ানডেতে ৮২ ম্যাচে পাকিস্তান দুটি বেশি জিতেছে (৪১ জয়, ৩৯ হার)। দুই ম্যাচ বেশি জেতার কারণে তাদের কাছে কেউ মাফ চাইতে যাবে! আমি সন্দিহান।’

টি-টোয়েন্টিতে ৮ ম্যাচে ভারতের ৭ জয় নিয়ে চোপড়ার মন্তব্য, ‘ভারত এই প্রতিযোগিতায় ৭-১ ব্যবধানে এগিয়ে আছে। আফ্রিদির গল্পটা কি পুরনো দিনের নয়? সম্ভবত সে অন্য কিছু বলতে চেয়েছিল। বিশ্বকাপের পরিসংখ্যান দেখুন। ‍ভারত অনেক এগিয়ে। ওরা ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালের কথা বলে। কিন্তু সে আসরের গ্রুপ পর্বেও কিন্তু পাকিস্তানকে হারিয়েছিল ভারত।

বিদেশে দুই দলের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স তুলে ধরতে চোপড়া বলেন, ‘ভারত এখন অস্ট্রেলিয়ায় গিয়ে তাদের হারায়। আর পাকিস্তান বড় ব্যবধানে হারে অস্ট্রেলিয়ার কাছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.